সাঈদীর মৃ’ত্যুতে ‘শোকের’ স্ট্যাটাস, ছাত্রলীগের ৬ নেতা বহিষ্কার

মানবতাবিরোধী অপরাধে আমৃত্যু কারাদণ্ডপ্রাপ্ত জামায়াত নেতা দেলাওয়ার হোসাইন সাঈদীর মৃত্যুর ঘটনায় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শোক প্রকাশ করে স্ট্যাটাস দেওয়ায় ছাত্রলীগের বিভিন্ন শাখার ছয় নেতাকর্মীকে সাময়িক বহিষ্কার করেছে ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা ছাত্রলীগ। এর মধ্যে চারজনই আখাউড়া উপজেলার। বাকি দুজন সরাইল ও আশুগঞ্জ উপজেলার।

বুধবার (১৬ আগস্ট) দুপুরে জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি রবিউল হোসেন রুবেল ও সাধারণ সম্পাদক শাহাদাৎ হোসেন শোভন স্বাক্ষরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

  • সিলেটে দলীয়ভাবে স্থগিতের ঘোষণার পরও সাঈদীর গায়েবানা জানাজা জামায়াতের
  • তাদেরকে স্থায়ীভাবে বহিষ্কারের জন্য কেন্দ্রীয় কমিটির কাছে সুপারিশ করা হয় বলে বিজ্ঞপ্তিতে উল্লেখ করা হয়।
    সাময়িক বহিষ্কৃত ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা হলেন আখাউড়া শহীদ স্মৃতি সরকারি কলেজ ছাত্রলীগের যুগ্ম আহ্বায়ক বাইজিদ খান, আশুগঞ্জের তালশহর ইউনিয়ন ছাত্রলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক নিয়াজ সোহান, আখাউড়ার মোগড়া ইউনিয়ন ছাত্রলীগের যুগ্ম আহ্বায়ক ফোরকান আহম্মেদ, আখাউড়া পৌর ছাত্রলীগের ২ নম্বর ওয়ার্ডের সাবেক সভাপতি রবিন খান খাদেম, কসবার গোপীনাথপুর ইউনিয়নের ৬ নম্বর ওয়ার্ড ছাত্রলীগের সদস্য নাজমুল সরকার ও সরাইল উপজেলা ছাত্রলীগের কর্মী রিয়াজ উদ্দিন খান মাইনুর।

    এর মধ্যে ফোরকান ‘বিদায় হে রাহবার’ লেখা সাঈদীর ছবি পোস্ট করেন। নাজমুল সরকার সাঈদীকে ‘প্রিয় মানুষ’ হিসেবে উল্লেখ করেন।

    রিয়াজ উদ্দিন গভীর শোক পকাশ করেন। রবিন খান লিখেছেন, ‘সাঈদী রবের ডাকে সাড়া দিয়েছেন’।
    ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি রবিউল হোসেন রুবেল জানান, দেলাওয়ার হোসাইন সাঈদী ছিলেন আদালতের রায়ে আমৃত্যু কারাদণ্ডপ্রাপ্ত চিহ্নিত যুদ্ধাপরাধী। তার মৃত্যুর পর অভিযুক্ত নেতাকর্মীরা ফেসবুকে যেসব পোস্ট দিয়েছেন সেটা বাংলাদেশ ছাত্রলীগের সংগঠন নীতি ও আদর্শ পরিপন্থী।

    বহিষ্কৃতরাসহ আরো অনেকে পোস্ট ডিলেট করেছেন বলে তিনি জানান।

    One thought on “সাঈদীর মৃ’ত্যুতে ‘শোকের’ স্ট্যাটাস, ছাত্রলীগের ৬ নেতা বহিষ্কার

    Leave a Reply

    Your email address will not be published. Required fields are marked *