মায়ের চেয়ে ৮ বছরের বড় ছেলে!

মা মাজেদা খাতুনের চেয়ে আট বছরের বড় ছেলে মাজেদ আলী। ছেলের জন্ম তারিখ ১০ আগস্ট ১৯৬৯। আর মায়ের জন্ম ১৮ অক্টোবর ১৯৭৭ সাল। অবিশ্বাস্য হলেও মা ও ছেলের বয়সের এমন পার্থক্য দেখা গেছে তাঁদের জাতীয় পরিচয়পত্রে।

তাঁদের বাড়ি পাবনার ভাঙ্গুড়া উপজেলার পাটুলীপাড়া গ্রামে। এনআইডি কার্ডে এমন ভুল তথ্যের কারণে বিড়ম্বনায় পড়তে হচ্ছে এই মা-ছেলেকে। এদিকে এনআইডি কার্ডে বয়স কম থাকায় দীর্ঘদিন ধরে স্বামীর পেনশনের প্রাপ্য চিকিৎসা ভাতা থেকে বঞ্চিত হচ্ছেন বৃদ্ধা মাজেদা বেগম।

মাজেদা বেগম জানান, তাঁর বয়স এখন ৭৪ বছর। কিন্তু এনআইডি কার্ডে ভুল করে জন্ম তারিখ লেখা হয়েছে ১৮ অক্টোবর ১৯৭৭ সাল। অর্থাৎ তাঁর বয়স কমে গিয়ে এখন ৪৬ বছর হয়েছে।

তিনি আরও জানান, তাঁর স্বামী মোসলেম উদ্দিন রেলওয়েতে চাকুরি করতেন। ২০ বছর আগে তিনি মারা যান। স্ত্রী হিসেবে তাঁর পেনশনের টাকা পাচ্ছেন তিনি। কিন্তু এনআইডি কার্ডে বয়স কম থাকায় যে পরিমাণ চিকিৎসা ভাতার টাকা পাওয়ার কথা তা থেকে বঞ্চিত হচ্ছেন।

ছেলে মাজেদ আলী জানান, এনআইডি কার্ডে তাঁর বয়স মায়ের চেয়েও ৮বছর বেশি! এই ভুলের কারণে বিড়ম্বনায় পড়তে হচ্ছে তাঁদেরকে। এ নিয়ে অনেকেই হাসাহাসি করে।

ভাঙ্গুড়া উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা আজিজুর রহমান বলেন, তাঁদেরকে এনআইডি কার্ড সংশোধনের জন্য পরামর্শ দেওয়া হয়েছে। এ জন্য তিনি প্রয়োজনীয় কাগজপত্রসহ অনলাইনে আবেদন করতে বলেছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *